অক্সিজেন ছাড়াই প্রথম বাঙালি নারীর এভারেস্ট জয়

Rakhi Majumder | আপডেট: ২৩ মে ২০২২ - ০৯:২৬:৪৩ এএম

আন্তর্জাতিক ডেস্ক : সাপ্লিমেন্টারি অক্সিজেনের সাহায্য ছাড়াই প্রথম বাঙালি নারী হিসেবে পৃথিবীর সর্বোচ্চ শৃঙ্গ মাউন্ট এভারেস্ট জয় করে ইতিহাস গড়লেন ভারতের পশ্চিমবঙ্গের পিয়ালী বসাক। এর আগে গত অক্টোবরে তিনি ভারতের প্রথম নারী পর্বতারোহী হিসেবে অক্সিজেনের সাহায্য ছাড়া ধৌলাগিরি শৃঙ্গ জয় করেছিলেন তিনি।

কোনও সাপ্লিমেন্টারি অক্সিজেনের সাহায্য ছাড়াই রোববার সকাল সাড়ে আটটার দিকে এভারেস্টের শীর্ষে পৌঁছান তিনি। তার এই সাফল্যে খুশির জোয়ার রাজ্যজুড়ে।

তার প্রসঙ্গে প্রথম বাঙালি এভারেস্ট বিজয়ী পর্বতারোহী বসন্ত সিংহ রায় বলেন, ‘‘এই সাফল্য বর্ণনা করার ভাষা নেই। আমিও এভারেস্ট উঠেছি। অক্সিজেন ছাড়া এভারেস্ট জয় তো ভাবাই যায় না। ক্যাম্প-৩-এর পর থেকেই অক্সিজেনের প্রয়োজন হয়। সেখান থেকে ক্যাম্প ৪ হলো ৮০০০ মিটার উঁচুতে। তারপর সামিট। ও যখন অক্সিজেন ছাড়া এভারেস্ট ওঠার পরিকল্পনা করে তখন আমার মনে হয়েছিল, এটা কি সম্ভব? তারপরও ও যে পেয়েছে তা অভাবনীয়। প্রার্থনা করি ও সুস্থভাবে নেমে আসুক।’’

পিয়ালীর এভারেস্ট জয় নিয়ে আরেক পর্বতারোহী সত্যরূপ সিদ্ধান্ত বলেন, ‘‘অসাধারণ সাফল্য। বাঙালি হিসেবে এই সাফল্য গর্বের। এভারেস্টে আট হাজার মিটার উচ্চতায় অক্সিজেন ছাড়া যাওয়াটা বিশাল বড় অ্যাডভেঞ্চার। আমাদের পর্বত আরোহীদের কাছে একটা দিগন্ত খুলে দিলো পিয়ালী।’’

এভারেস্ট জয়ের এই সাফল্য সহজে আসেনি। মূল বাধা ছিল আর্থিক দিক থেকে। পিয়ালী একটি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের টিচার। এবারও এভারেস্ট অভিযানের প্রয়োজনীয় ৩৫ লাখ টাকার পুরো টাকা তিনি জোগাড় করতে পারেননি। শেষমেশ একটি এজেন্সি বাকি ১২ লাখ টাকা দেয়। 

এবারই প্রথম নয়, ২০১৯-এ খারাপ আবহাওয়ার জন্য এভারেস্ট অভিযানের মাঝপথ থেকে ফিরতে হয় তাকে। তখনই কিছু অভিযাত্রীর সঙ্গে তার কথা হয়। তারা অক্সিজেন ছাড়াই এভারেস্টে ওঠার পরিকল্পনা করছিলেন। তখনই পিয়ালী ঠিক করেন, অক্সিজেন ছাড়াই এভারেস্ট অভিযান করবেন। 

কিউটিভি/অনিমা/২৩.০৫.২০২২ খ্রিস্টাব্দ/সকাল ৯.২৬

▎সর্বশেষ

ad