পায়ের পাতায় যেসব লক্ষণ জানান দেবে শরীরের গোপন রোগের কথা

admin | আপডেট: ০১ মে ২০২২ - ১০:২৯:০৮ এএম

স্বাস্থ্য ডেস্ক : শরীরের যত্ন নেওয়ার কথা বললেই সবাই প্রথমে চিকিৎসকের কাছে গিয়ে ব্লাড প্রেসার মাপান। রুটিনমাফিক সুগার, ট্রাইগ্লিসারাইড, কোলেস্টেরল এইসব পরীক্ষা করান। কিন্তু কেউই শরীরের বাহ্যিক পরিবর্তনের দিকে নজর দেন না। শরীরের কোথাও কোনও সমস্যা হলে কিন্তু ত্বক থেকে নখ- সব কিছুতেই তার একটা আভাষ পাওয়া যায়। কিন্তু বরাবরই এই সব ছোট উপসর্গ হালকা ভাবে নেওয়া আমাদের অভ্যাস। 

সারাদিনের যাবতীয় অত্যাচার হয় এই দুই পায়ের উপর ভর দিয়েই। আর তাই পায়ের যত্ন নেওয়াটা কিন্তু আমাদের প্রাথমিক কর্তব্য। পেডিকিওর, নেলপলিশ কিংবা পছন্দের জুতায় পা দেখতে সুন্দর লাগে। কিন্তু আদৌ ভাল থাকে কি? অনেক সময় জুতো থেকে পায়ে ক্ষত হয়। যা কিন্তু মোটেই ভাল লক্ষণ নয়। তেমনই শরীরে কিছু পরিবর্তন হলে অনেকের পায়ের পাতা থেকে খসখসে চামড়া উঠতে শুরু করে। কারও আবার অভ্যাস আছে বসে পায়ের চামরা টেনে তোলার- এই সবকটি সমস্যা কিন্তু জানান দেয় শরীরের গোপন রোগের। জানতেন?

লোমহীন পা- পা সুন্দর দেখাতে অনেকেই পেডিকিওর করান। ওয়াক্সিং করান। পায়ের পাতায় প্রচুর পরিমাণে লোম না থাকলেও একটা হালকা আস্তরণ থাকে। সেইখানে কোনও লোম থাকে না। কিন্তু পায়ের পাতায় যদি কোনও লোম না থাকলে তাহলে বুঝতে হবে শরীরে রক্ত সঞ্চালন ঠিকমতো হচ্ছে না। খেয়াল করে দেখবেন যাদের পায়ের পাতা লোমহীন তাদের হেয়ার গ্রোথও কম।

পায়ের পাতায় ঝিঁঝিঁ ধরা- প্রায়শই পা ধরে থাকছে? উঠতে গেলেই পা অসাড় হয়ে যাচ্ছে? শরীরে পানির পরিমাণ কমে গেলে এই সমস্যা বেশি হয়। গরমের দিনে সমস্য়া আরও বাড়ে। কারণ তখন আবহাওয়া যেমন শুষ্ক থাকে তেমনআ আর্দ্রতা থাকে বেশি। ঘাম বেশি হয়। যখনই পায়ের পাতায় ঝিঁঝিঁ ধরবে তখন সঙ্গে সঙ্গে একগ্লাস পানি খান। কিছুটা হলেও আরাম পাবেন।

পায়ের পাতায় ঘা- পায়ের পাতায় ঘা হল অবধারিত ভাবে সুগার বাড়ার লক্ষণ। রক্তে প্রয়োজনের তুলনায় শর্করা বেড়ে গেলে অর্থাৎ হাই ব্লাড সুগারের সমস্যা থাকলে কিন্তু এই ঘা বেশি হয়। এছাড়াও স্কিন ক্যানসারের প্রাথমিক লক্ষণও কিন্তু পায়ের পাতায় ঘা। আর পায়ের পাতায় ঘা হলে বা জোর করে পায়ের চামড়া ছেঁড়ার অভ্যাস থাকলে তা মোটেই স্বাস্থ্যকর নয়। সেখান থেকে ব্যাকটেরিয়া ঘটিত সংক্রমণের সম্ভাবনা কিন্তু থেকেই যায়।

পায়ের পাতা ঠান্ডা হয়ে যাওয়া- পায়ের পাতা ঠান্ডা নাকি গরম তা দেখে শরীরের তাপমাত্রা দেখেই বোঝা যায়। সাধারণত পায়ের পাতা গরম থাকে। যদি দেখেন যে প্রায়শই তা ঠান্ডা থাকছে তাহলে কিন্তু অবহেলা নয়। পায়ের পাতা ঠান্ডা থাকলে তা হল হাইপোথাইরয়েডিজমের লক্ষণ। প্রয়োজনীয় রক্তপরীক্ষা জরুরি।

পায়ের পাতা লাল কিংবা কুঁচকে যাওয়া- পায়ের পাতা যদি লাল হয়ে যায়, কুঁচকে থাকে, নির্দিষ্ট কিছু জায়গা গরম থাকে এবং সেখানে শক্ত কোনও অনুভূতি হয় তাহলে ফেলে রাখবেন না। এর সঙ্গে খেয়াল রাখবেন ব্যথা হচ্ছে কিনা। এই ব্যথা এবং লাল হয়ে যাওয়া কিন্তু পায়ের পাতায় টিউমারের লক্ষণ।

কিউটিভি/অনিমা/ ১লা মে ২০২২ খ্রিস্টাব্দ /সকাল ১০.২৯

▎সর্বশেষ

ad