উচ্চ রক্তচাপের সমস্যা? নিয়মিত করুন এই ৪ যোগাসন

Rakhi Majumder | আপডেট: ২১ জুন ২০২২ - ১১:২৩:২১ পিএম

লাইফ ষ্টাইল ডেস্ক : উচ্চ রক্তচাপের সমস্যা এখন ঘরে ঘরে। অত্যধিক ওজন, অতিরিক্ত লবণ খাওয়া, অস্বাস্থ্যকর জীবনযাপন, মানসিক চাপ, উদ্বেগ, অনিয়মিত খাওয়াদাওয়া উচ্চ রক্তচাপ হওয়ার অন্যতম কারণ। এর কারণে স্ট্রোক, হার্টের সমস্যা, কিডনি রোগ হওয়ার ঝুঁকি বাড়ে। তাই উচ্চ রক্তচাপ নিয়ন্ত্রণে আনা খুবই জরুরি।

রক্তচাপ নিয়ন্ত্রণে রাখার অন্যতম উপায় হল নিয়মিত শরীরচর্চা বা যোগব্যায়াম করা। শরীরচর্চার অভ্যাস থাকলে অনেক রোগই ধারে-কাছে ঘেঁষতে পারে না। কিন্তু অনেকেই বুঝতে পারেন না, রক্তচাপ নিয়ন্ত্রণে রাখতে ঠিক কোন ধরনের ব্যায়াম করবেন। চলুন জেনে নেওয়া যাক, কোন কোন যোগাসন উচ্চ রক্তচাপ নিয়ন্ত্রণে সাহায্য করতে পারে

উত্তানাসন 

এই যোগাসন রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ায়, স্ট্রেস কমায় এবং মনকে শান্ত ও রিল্যাক্স করে। এছাড়াও, এটি মাথায় রক্ত প্রবাহিত করতে সাহায্য করে, রক্ত সঞ্চালন বাড়ায়, শরীরকে শান্ত করে এবং হার্ট রেট স্থিতিশীল করে। 

পদ্ধতি

প্রথমে হাত দু’টো আপনার শরীরের দুই পাশে রেখে একেবারে সোজা হয়ে দাঁড়ান। এবার হাত দু’টো সোজা অবস্থায় ধীরে ধীরে মাথার উপরে তুলুন। তারপর ধীরে ধীরে হাতগুলো নামাতে থাকুন এবং কোমর মুড়ে হাঁটু না বাঁকিয়ে সামনের দিকে একেবারে ঝুঁকে যান। কপালটা হাঁটুর কাছে আনার চেষ্টা করুন। দুই হাতের তালু যেন অবশ্যই মেঝেতে স্পর্শ করে। কয়েক সেকেন্ড এই ভাবে থাকুন। তারপর ধীরে ধীরে ওপরে উঠুন এবং স্বাভাবিক ভাবে দাঁড়ান।

বিপরীত করণী

এই যোগাসন স্ট্রেস উপশম করতে সাহায্য করে, শরীরকে ডিটক্সিফাই করে, রক্ত প্রবাহ নিয়ন্ত্রণে রাখে এবং উচ্চ রক্তচাপ নিয়ন্ত্রণ করে। 

পদ্ধতি

প্রথমে চিত হয়ে শুয়ে পড়ুন। তারপর পা দু’টো জোড়া করে যতটা সম্ভব ওপরের দিকে তুলুন এবং নিতম্ব দুই হাতের তালু দিয়ে ঠেলে ধরুন। পিঠের কিছুটা অংশ এবং কোমর তুলতে হবে, যেন মেঝেতে লেগে না থাকে। কোমর থেকে পা সোজা থাকবে। হাতের দুই কনুই দেহ বরাবর কাছাকাছি রাখুন।

অধো মুখ স্বনাসন

উচ্চ রক্তচাপ নিয়ন্ত্রণ করার ক্ষেত্রে সবচেয়ে কার্যকর যোগাসনগুলোর মধ্যে একটি হল অধো মুখ স্বনাসন। এটি মেরুদণ্ড এবং কাঁধকে প্রসারিত করে, স্ট্রেস কমায়, উচ্চ রক্তচাপ কমায়, রক্ত সঞ্চালন উন্নত করে। নিয়মিত এটি করলে হার্ট ভাল থাকে। মেদ ঝরাতেও এই যোগের জুড়ি নেই। 

পদ্ধতি

প্রথমে সোজা হয়ে দাঁড়ান। এরপর হাতের তালু আপনার সামনের দিকে মেঝের ওপর রেখে মাথা নীচু করে সামনের দিকে বেঁকে যান। ধীরে ধীরে আপনার পা দু’টি পিছনের দিকে সরান এবং টানটান করুন। সাবধানে ভারসাম্য বজায় রাখুন যাতে পা এবং হাত একে অপরের সঙ্গে সামঞ্জস্যপূর্ণ হয়। হাতগুলো সোজা রাখবেন। গভীর ভাবে শ্বাস নিন এবং ৩০ সেকেন্ডের জন্য অবস্থান ধরে রাখুন।

পশ্চিমোত্তানাসন

মানসিক চাপ কমানোর পাশাপাশি উচ্চ রক্তচাপও কমায় এই আসন। এটি বিরক্তি, রাগ এবং উদ্বেগ কমাতেও কার্যকর। 

পদ্ধতি 

প্রথমে পা দু’টো মেলে বসুন। তারপর হাত তুলে মাথার দুই পাশে ওপরের দিকে সোজা রাখুন। এবার ধীরে ধীরে হাত সামনের দিকে আনুন এবং কোমর থেকে ওপরের বডিও সামনের দিকে ঝোঁকান। হাতের দুই আঙুল দিয়ে দুই পায়ের বুড়ো আঙুল ধরুন এবং মাথা পায়ের ওপরে একেবারে ঝুঁকিয়ে দিন। হাতের কনুই দুটো মেঝেতে ছোঁয়াবেন। কিছুক্ষণ থাকার পর ধীরে ধীরে হাত তুলে স্বাভাবিক অবস্থায় ফিরে আসুন।

সূত্র: বোল্ডস্কাই

কিউটিভি/অনিমা/২১.০৬.২০২২ খ্রিস্টাব্দ/রাত ১১:২৩

▎সর্বশেষ

ad