বাংলাদেশে শান্তিপূর্ণ সমাবেশের অধিকার দিতে হবে: জাতিসংঘ

superadmin | আপডেট: ০৮ ডিসেম্বর ২০২২ - ১১:৪৬:৪১ পিএম

ডেস্কনিউজঃ বাংলাদেশের ঘটনাপ্রবাহে গভীর নজর রাখা হচ্ছে বলে জানিয়েছেন জাতিসংঘের একজন বিশেষজ্ঞ। তিনি হলেন সংস্থাটির শান্তিপূর্ণ সমাবেশের স্বাধীনতা ও সমিতি গঠনের অধিকারবিষয়ক বিশেষ র‍্যাপোর্টিয়ার ক্লেমেন্ট এন ভৌল। সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম টুইটারে তিনি এমন কথা বলেছেন।

আজ (বৃহস্পতিবার) নিজের অফিসিয়াল টুইটার একাউন্ট থেকে ক্লেমেন্ট এন ভৌল লিখেছেনঃ

“২০২২ সালের জুলাই মাস থেকে শান্তিপূর্ণ বিক্ষোভে হামলা ও প্রাণঘাতী বলপ্রয়োগের (যেগুলোর কারণে মানুষ মারা যাচ্ছে) উদ্বেগজনক খবর আসার পর থেকেই আমি বাংলাদেশের ঘটনাপ্রবাহে গভীরভাবে নজর রাখছি। বাংলাদেশি কর্তৃপক্ষকে অবশ্যই শান্তিপূর্ণ সমাবেশের অধিকারের নিশ্চয়তা দিতে হবে এবং বিক্ষোভকারীদের বিরুদ্ধে অতিরিক্ত বলপ্রয়োগ করা থেকে বিরত থাকতে হবে।”

এর আগেও বাংলাদেশ সরকারের কাছে এসব নিয়ে তিনি উদ্বেগ জানিয়েছিলেন স্মরণ করিয়ে দিয়ে ভিন্ন এক টুইটে জাতিসংঘের বিশেষ ওই র‍্যাপোর্টিয়ার লিখেনঃ

“শান্তিপূর্ণ সমাবেশের প্রেক্ষাপটে আইন প্রয়োগকারী সংস্থার দ্বারা প্রাণঘাতী বলপ্রয়োগের অনুরূপ খবর আসার পর ২০২১ সালে আমি বাংলাদেশ সরকারের কাছে উদ্বেগ প্রকাশ করেছিলাম।”

উল্লেখ্য, গতকাল (বুধবার) বাংলাদেশে জাতিসংঘের আবাসিক সমন্বয়ক গোয়েন লুইস এক বিবৃতিতে বলেছিলেন, “মুক্তভাবে মতপ্রকাশ, সংবাদমাধ্যমের স্বাধীনতা এবং শান্তিপূর্ণ সমাবেশ আয়োজন করতে দেওয়ার ক্ষেত্রে বাংলাদেশ প্রতিশ্রুতিবদ্ধ।” আগামী বছর বাংলাদেশে জাতীয় সংসদ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে উল্লেখ করে জাতিসংঘের সদস্য হিসেবে বাংলাদেশকে সেই প্রতিশ্রুতির কথাও স্মরণ করিয়ে দিয়েছিলেন তিনি।

বিপুল/০৮.১২.২০২২/ রাত ১১.৪২

▎সর্বশেষ

ad