কামাল ও রাজুর লাশের অপেক্ষায় স্বজনরা

uploader3 | আপডেট: ২৫ ফেব্রুয়ারী ২০২৩ - ১০:৪৬:১৪ পিএম

ডেস্ক নিউজ : দক্ষিণ আফ্রিকায় সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত মোস্তফা কামাল পুপেল ও দ্বীন মোহাম্মদ রাজুর লাশের অপেক্ষায় আছেন স্বজনরা। তাদের গ্রামের বাড়িতে স্বজনদের কান্নার রোল পড়েছে।

সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায়, দুই পরিবারের স্ত্রী সন্তান ও বাবা-মাকে আহাজারি করতে দেখা যায়। পরিবারের সদস্যদের মুখে হাসি ফোটানোর জন্য নিজ দেশ ছেড়ে প্রবাসে গিয়েছিলেন তারা।

কে জানতো তাদের কর্মক্ষম সন্তানদের লাশের খবরে পরিবারগুলো শোকের সাগরে ভাসবে। নিহতদের পরিবারের একটি দাবি, রেমিট্যান্স যোদ্ধাদের লাশ যেন দেশের মাটিতে দাফন করার সুযোগ পায়।

দেশটির জোহানেসবার্গ থেকে কেপটাউনে যাওয়ার পথে শুক্রবার সকাল ৯ টার দিকে বুফুল নামক স্থানে মোস্তফা কামাল পুপেল (৩৪) ও দ্বীন মোহাম্মদ রাজুসহ (৩৮) ৫ জন সড়ক দুর্ঘটনায় মারা যান।

নিহত পুপেল উপজেলার জায়লস্কর ইউনিয়নের দক্ষিণ নেয়াজপুর গ্রামের তমিজ উদ্দিন ভূঞা বাড়ির মৃত সিরাজ উল্যার ছেলে এবং রাজু মাতুভূঞা ইউনিয়নের মমারিজপুর গ্রামের আব্দুল মন্নান মিলনের ছেলে।

নিহত কামালের ভাই অ্যাডভোকেট মোস্তফা জামাল নওফেল যুগান্তরকে বলেন, ২০১০ সালে পরিবারের হাল ধরতে তিনি আফ্রিকা যান। তার একটি দুই বছর বয়সি ছেলে রয়েছে। আমার ভাইকে হারিয়েছি। তবে লাশ দেশে এনে দাফন করতে চাই।

দ্বীন মোহাম্মদ রাজুর বাবা আব্দুল মন্নান মিলন যুগান্তরকে বলেন, রাজুর এক ছেলে ও এক মেয়ে রয়েছে। আমি আমার ছেলেকে হারিয়েছি। অন্তত ছেলের লাশ যেন দেখতে পাই। ছেলের লাশ যেন দেশে আনা যায়, সে জন্য সরকারের সহযোগিতা কামনা করছি।

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা নাহিদা আক্তার তানিয়া জানান, দুই পরিবারের আকুতি কামাল ও রাজুর লাশ যেন তারা দেখতে পান। তাদের লাশ দ্রুত দেশে আনার দাবি জানান স্বজনরা। এ বিষয়ে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিতে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের কাছে যোগাযোগ করা হচ্ছে।

কিউটিভি/অনিমা/২৫ ফেব্রুয়ারী ২০২৩/রাত ১০:৪৫

▎সর্বশেষ

ad