ভারতের শেষ রাস্তা!

Rakhi Majumder | আপডেট: ০২ সেপ্টেম্বর ২০২২ - ১০:০৯:৫৩ এএম

ডেস্ক নিউজ : একজন ভ্রমণপিপাসু সবসময় ভ্রমণ করতে ভালোবাসেন। আমি তার ব্যতিক্রম নই। আপনি বিশ্বকে জানতে পারবেন ভ্রমণের মধ্য দিয়ে। ভ্রমণের একেক জায়গার সৌন্দর্য একেক রকম। আজ কথা বলব ভারতের এমনই এক অসাধারণ তথ্যবহুল জায়গা ধানুশকোড়ি নিয়ে।

ভারতের দক্ষিণ সীমান্তের শেষ সীমান্ত ধনুশকোড়ি। শ্রীলংকা সীমান্ত থেকে মাত্র ১৮ কিলোমিটার দূরে। যদিও এ শহরে কেউ না থাকতে থাকতে জনপদটি আজ ভুতুড়ে অবস্থায় আছে।

ভারতে এমন অনেক রহস্যময় স্থান আছে, যা অনেকেরই অজানা। তেমনই একটি স্থান তামিলনাড়ুর পূর্ব উপকূলে রামেশ্বরম দ্বীপের তীরে অবস্থিত। এই স্থানটি ভারতের শেষপ্রান্ত বলেও পরিচিত।

এ শহরে পৌঁছতে মূল ভূখণ্ড থেকে পামবান দ্বীপ অতিক্রম করতে হয়। বেশ কয়েকটি মাছ ধরার গ্রাম থেকে ধানুশকোড়ির যাত্রা শুরু হয়। ধানুশকোড়ি হলো ভারত ও শ্রীলংকার মধ্যে একমাত্র সীমান্ত, যা পাক-প্রণালিতে বালুর স্তূপের উপর বিদ্যমান।

ধানুশকোড়ি তামিলনাড়ুর পামবান দ্বীপের (রামেশ্বরম দ্বীপ) দক্ষিণ-পূর্ব প্রান্তে অবস্থিত। ধানুশকোড়ি একটি রহস্যে ঘেরা জায়গা, সেখানে পৌঁছানো মানুষের পক্ষে বেশ কঠিন। সেখানে এমন একটি রাস্তা আছে, যাকে ভারতের শেষ রাস্তা বলা হয়।

এ রাস্তা ধরে শ্রীলংকা থেকে ধনুশকোডির দূরত্ব মাত্র ৩১ কিলোমিটার। রাস্তাটি থেকে স্পষ্টভাবেই দৃশ্যমান শ্রীলংকা।

এমনকি পৃথিবীর সবচেয়ে ছোট স্থানের তকমাও পেয়েছে ধানুশকোড়ি। এটি ভারত ও শ্রীলংকার মধ্যে একমাত্র স্থল সীমানা। এটি বিশ্বের ক্ষুদ্রতম স্থানগুলোর মধ্যে একটি হিসেবে বিবেচিত।

কিউটিভি/অনিমা/০২,০৯.২০২২/সকাল ১০.০৯

▎সর্বশেষ

ad