পশ্চিমাদের ‘চোর’ বললেন পুতিন!

Anima Rakhi | আপডেট: ১৪ জুন ২০২৪ - ০৬:২৫:১৮ পিএম

আন্তর্জাতিক ডেস্ক : রাশিয়ার কাছ থেকে দখলকৃত সম্পদ ইউক্রেনকে দেওযার সিদ্ধান্ত নিয়েছে জি-৭। এ প্রেক্ষিতে পশ্চিমাদের সমালোচনা মত্ত হয়েছে রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন। 

এটিকে ‘চুরি’ হিসেবে আখ্যায়িত করে এর পরিণতি ভুগতে হবে বলেও সতর্ক করেছেন তিনি। রুশ পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের কর্মকর্তাদের সঙ্গে বৈঠককালে এসব কথা বলেছেন পুতিন।

ইতালিতে জি-৭ নেতারা জব্দকৃত রুশ সম্পদ ব্যবহার করে ইউক্রেনকে ৫ হাজার কোটি ডলারের ঋণ প্যাকেজ দিতে ইতোমধ্যেই সম্মত হয়েছেন।

পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের কর্মকর্তাদের সঙ্গে বৈঠকে পুতিন সতর্ক করে বলেন, পশ্চিমারা মস্কোর সঙ্গে যেমন আচরণ করেছে তাতে দেখা যাচ্ছে ‘যে কেউ’ তাদের পরবর্তী শিকার হতে পারে এবং একইভাবে তাদের সম্পদ জব্দ করা হতে পারে।

২০২২ সালের ফেব্রুয়ারিতে রাশিয়া ইউক্রেনে কয়েক হাজার সেনা পাঠানোর পর প্রায় ৩২৫ বিলিয়ন ডলারের রুশ সম্পদ জব্দ করে পশ্চিমারা।

পরিকল্পনা অনুসারে, আন্তর্জাতিক বাজার থেকে একটি ঋণ গ্রহণ করে প্রতি বছর ইউক্রেনকে ৫ হাজার কোটি ডলার দেবে জি-৭। ঋণের কিস্তি হিসেবে রুশ সম্পদের সুদ থেকে প্রতি বছর ৩ বিলিয়ন করে পরিশোধ করা হবে।

আন্তর্জাতিক আইন অনুসারে, রাশিয়ার জব্দকৃত সম্পদ দেশগুলো ইউক্রেনকে দিতে পারে না। কিন্তু রুশ সম্পদ থেকে প্রতি বছর বিপুল পরিমাণ সুদ আয় হচ্ছে। প্রতি বছর সুদের পরিমাণ প্রায় ৩ বিলিয়ন ডলার। ফলে এই সুদকে সৃজনশীল উপায়ে কাজে লাগাতে চাইছে দেশগুলো।

কিউটিভি/অনিমো/১৪ জুন ২০২৪,/সন্ধ্যা ৬:২৫

▎সর্বশেষ

ad