অতিরিক্ত রাগ নিয়ন্ত্রণ করবেন যেভাবে

Ayesha Siddika | আপডেট: ০৪ জুলাই ২০২৪ - ০৪:৫৫:১৪ পিএম

লাইফ ষ্টাইল ডেস্ক : জন্মগতভাবেই মানুষের মধ্যে কিছু সহজাত আবেগ থাকে। এর মধ্যে রয়েছে হাসি, কান্না, ঘৃণা, ভালোবাসা, ঈর্ষা, বিরক্তিবোধ ইত্যাদি। তেমনই রাগও মানুষের একটি সহজাত আবেগ। রাগ নেই এমন মানুষ খুঁজে পাওয়া একটু কঠিনই হবে। সবার মধ্যেই কমবেশি রাগ আছে। তবে মাত্রাতিরিক্ত ও অনিয়ন্ত্রিত রেগে যান এমন মানুষও আমাদের চারপাশে আছে। অনিয়ন্ত্রিত রাগ একদিকে যেমন আত্মহত্যায় প্ররোচিত করে, তেমনই অন্য দিকে মানুষের মধ্যে জিঘাংসা তৈরি করে, যা তাকে প্রতিহিংসাপরায়ণ করে তোলে। সংঘাত ও খুনখারাবির ঝুঁকি বাড়ায়।

সহজে রেগে যাবেন না

যেসব বিষয়গুলোর কারণে আপনি রেগে যাচ্ছেন সেইগুলো করবেন না, বা কারোর সঙ্গে কথা বলতে আপনার যদি বিরক্ত লাগে তাহলে নিজেকে সে সময় দূরে সরিয়ে রাখবেন। তিনি যদি কোনোও কথা বলেন তাহলে আপনি চুপ করে থাকবেন। রেগে কিন্তু সহজে যাবেন না।

কেন বাড়ে হার্ট অ্যাটাক হওয়ার ঝুঁকি

যদি আপনি কখনও রেগে যান, কোনোও কারণ ছাড়াই বা আপনার সঙ্গে কেউ মেজাজ হারিয়েও কথা বলেন তাহলে চুপ করে যাবেন। সেখান থেকে সরে যাবেন বা শান্ত হয়ে সেই জায়গায় বসবেন। শান্ত থাকবেন। কখনোও চেঁচামেচি করবেন না। এতে আপনার হার্ট অ্যাটাক হওয়ার ঝুঁকি ক্রমশ বাড়তে থাকবে। তাই আগেই সাবধান হোন আপনি।
খারাপ ব্যবহার করবেন না

আপনি যেহেতু জানেন আপনি একটুতেই রেগে যান, তাই যখন কারোর সঙ্গে কথা বলবেন ভেবে চিন্তে কথা বলবেন। গভীর শ্বাস-প্রশ্বাস নিয়ে তারপর কথা বলবেন। দেখবেন কিছুটা হলেও রাগ কমবে। কারোর সঙ্গে খারাপ ব্যবহার করবেন না। অযথা তর্কাতর্কি এড়িয়ে চলুন।

মানসিক চাপ কমাবেন

অতিরিক্ত রাগ কমাতে আপনাকে মানসিকভাবে সুস্থ থাকতে হবে। তাই মানসিক চাপ কমাবেন। নিজেকে ফুরফুরে রাখবেন। নিত্যদিন ব্যায়াম করবেন। তাহলে কর্টিসেলের মাত্রা শরীরে কমবে। সুখী হরমোন বাড়তে থাকবে যে কারণে আপনার রাগ এমনিতেই কমে যাবে।

ভালো কাজ করবেন
অনেক সময়, কোনও কারণ ছাড়াই অনেকে খুব রেগে যান। সে সময় আপনি যাকে পছন্দ করেন, তার সঙ্গে ভালো কথা বলার চেষ্টা করবেন বা আপনি যে কাজ বেশি ভালো পারেন। সেই কাজটি করবেন। দেখবেন, এতে আপনার রাগ কমে যাবে।

চিকিৎসকের পরামর্শ নেবেন
যদি কখনও দেখেন, আপনি কোনোভাবেই আপনার রাগকে নিয়ন্ত্রণে রাখতে পারছেন না। যে কারণে আপনার নিজের, আপনার আশপাশের বা পরিবারের সদস্যদের নানান সমস্যা হচ্ছে। তাহলে আপনি একটি পেশাদার থেরাপিস্ট বা চিকিৎসকের পরামর্শ নেবেন। এতে আপনার রাগ আসতে আসতে কমবে।

 

 

কিউটিভি/আয়শা/০৪ জুলাই ২০২৪,/বিকাল ৪:৫৪

▎সর্বশেষ

ad