ব্রেকিং নিউজ
লুৎফর রহমান এর কলামঃ একই সমতটে পতনশীল পুঁজিবাজারে নীরবতা, সবাই কি দর্শক ?  মতলবের কেএফটি কলেজিয়েট স্কুলের ছাত্রী সানিয়া’র জাতীয় পর্যায়ে শ্রেষ্ঠত্ব অর্জন টস জিতে জিম্বাবুয়েকে ব্যাটিংয়ে পাঠাল বাংলাদেশ নিউইয়র্কে বিএনপির ৩ শাখা কমিটির ভোটাভুটির মাধ্যমে কাউন্সিল সম্পন্ন অভ্যন্তরীণ কারণে ভারতের পররাষ্ট্র সচিবের সফর স্থগিত : পররাষ্টমন্ত্রী জাতীয়তাবাদী আইনজীবী ফোরাম থেকে ব্যারিস্টার খোকনকে অব্যাহতি বিএনপির আন্তর্জাতিক সম্পাদকের অসাংগঠনিক তৎপরতায় যুক্তরাষ্ট্র বিএনপিতে তোলপাড় টি-টোয়েন্টিতেও হোয়াইটওয়াশ বাংলাদেশের মেয়েরা ‘স্বাধীনতা পুরস্কার ২০২৪’ পেলেন কুড়িগ্রামের এসএম আব্রাহাম লিংকন

ইউক্রেন শীর্ষ সম্মেলনের আগে যুদ্ধক্ষেত্রে সাফল্যের দাবি রাশিয়ার

Anima Rakhi | আপডেট: ১১ জুন ২০২৪ - ০৩:০৫:৫২ পিএম

আন্তর্জাতিক ডেস্ক : ইউক্রেনের পূর্ব দোনেৎস্ক কিয়েভের জয় করা অঞ্চলের আরেকটি গ্রামের দখল নেওয়ার দাবি করেছে রাশিয়া।

সোমবার সুইজারল্যান্ডে সর্বশেষ একটি বড় শীর্ষ সম্মেলনের আগে ধারাবাহিক এই সাফল্যের দাবি করল রাশিয়া। কয়েক ডজন বিশ্ব নেতা ও শীর্ষ কূটনীতিক এই বৈঠকে যোগ দেওয়ার কথা রয়েছে।

রাশিয়ার আগ্রাসনে বিরুদ্ধে দুই বছরেরও বেশি সময় ধরে লড়াই করার কারণে প্রেসিডেন্ট ভলোদিমির জেলেনস্কি সপ্তাহান্তে বিশ্ব নেতাদের এই বৈঠকে কিয়েভের প্রতি তাদের সমর্থনের আশা প্রকাশ করেন।

জেলেনস্কি রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিনের সঙ্গে সরাসরি আলোচনার কথা অস্বীকার করে বলেছেন, পুতিনের মাধ্যমে মস্কোর সঙ্গে ঘনিষ্ঠ সম্পর্ক রয়েছে এমন দেশগুলোর ওপর জয়লাভ করতে আগ্রহী।

প্রায় এক বছরের অচলাবস্থার পর, ইউক্রেন এই বসন্তে অনেক মানুষে ওই এলাকায় বসতি পরিত্যাগ করতে বাধ্য হয়েছে। রুশ সেনারা এসব এলাকায় শক্তি ও সরবরাহ সুবিধা জোরদার করেছে।

রাশিয়ার প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় সোমবার বলেছে, তাদের বাহিনী ‘অগ্রগতি অব্যাহত রেখেছে, শত্রুর প্রতিরক্ষার ব্যুহ ভেদ করেছে এবং রাশিয়ান-নিয়ন্ত্রিত শহর দোনেৎস্কের দক্ষিণ-পশ্চিমে অবস্থিত স্টারোমায়োরস্কি বসতি মুক্ত করেছে। গ্রাম হারানো কীয়েভের জন্য একটি প্রতীকী আঘাত। কারণ ইউক্রেন গত বছর ব্যাপকভাবে দুর্বল পাল্টাপাল্টি আক্রমণে কয়েকটি গ্রাম পুনরুদ্ধার করতে সক্ষম হয়েছিল, এটি সেগুলোর একটি। দোনেৎস্ক অঞ্চলের দক্ষিণের সম্মুখ ফ্রন্টলাইন স্টারোমায়োরস্কি।  

মস্কো ২০২২ সালে যে চারটি অঞ্চল রাশিয়ার সঙ্গে সংযুক্ত করেছিল দোনেৎস্ক তার একটি এবং সেখানে এখনো কিছু ফ্রন্টে তীব্র যুদ্ধ চলছে।

পুতিন গত সপ্তাহে একটি অর্থনৈতিক ফোরামে বলেছিলেন, রাশিয়া এ বছরে ৪৭ ইউক্রেনীয় শহর ও গ্রাম দখল করেছে। এর মধ্যে রয়েছে উত্তর-পূর্ব খারকিভ অঞ্চল, গত মাসে একটি বড় স্থল হামলা চালিয়ে এটি দখল করে নেয়। এতে হাজার হাজার ইউক্রেনীয়কে সরিয়ে নেওয়া হয় এবং কিয়েভ বাহিনীর অবস্থান জোরদার করা হয়।

মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেনের জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টা জেক সুলিভান রোববার বলেছেন, ওয়াশিংটন আংশিকভাবে মার্কিন সরবরাহ করা অস্ত্র ব্যবহারের ওপর নিষেধাজ্ঞা তুলে নিয়ে রাশিয়ার অভ্যন্তরে হামলার অনুমতি দেওয়ার পর খারকিভ সীমান্ত অঞ্চলে রাশিয়ার অগ্রগতি ‘থমকে গেছে’।

বাইডেন গত সপ্তাহে নিশ্চিত করেছেন, মধ্য সুইজারল্যান্ডের লুসার্ন হ্রদের পাশে বার্গেনস্টক রিসোর্টে ১৫-১৬ জুনের শীর্ষ সম্মেলনে যোগ দেবেন না। এটি কিয়েভের জন্য একটি বড় ধাক্কা।

বাইডেনের পরিবর্তে ইউক্রেনের সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ সামরিক এবং আর্থিক সমর্থক যুক্তরাষ্ট্রের প্রতিনিধিত্ব করবেন ভাইস প্রেসিডেন্ট কমলা হ্যারিস।

জেলেনস্কি মস্কোর মিত্রদের মধ্যে উচ্চ-স্তরের বিশেষ করে প্রধান মিত্র চীনের উপস্থিতি নিশ্চিত করার আশা করেছিলেন।

বেইজিং সমাবেশের সমালোচনা করেছে এবং বলেছে, রাশিয়ার অংশগ্রহণ ছাড়াই চীনের এই সম্মেলনে অংশগ্রহণ করা ‘কঠিন’ হবে।

সোমবার সুইস প্রেসডেন্সি জানিয়েছে, ৯০টি দেশ তাদের যোগদানের বিষয়টি নিশ্চিত করেছে।

কিউটিভি/অনিমা/১১ জুন ২০২৪,/বিকাল ৩:০৫

▎সর্বশেষ

ad