ব্রেকিং নিউজ
লুৎফর রহমান এর কলামঃ একই সমতটে পতনশীল পুঁজিবাজারে নীরবতা, সবাই কি দর্শক ?  মতলবের কেএফটি কলেজিয়েট স্কুলের ছাত্রী সানিয়া’র জাতীয় পর্যায়ে শ্রেষ্ঠত্ব অর্জন টস জিতে জিম্বাবুয়েকে ব্যাটিংয়ে পাঠাল বাংলাদেশ নিউইয়র্কে বিএনপির ৩ শাখা কমিটির ভোটাভুটির মাধ্যমে কাউন্সিল সম্পন্ন অভ্যন্তরীণ কারণে ভারতের পররাষ্ট্র সচিবের সফর স্থগিত : পররাষ্টমন্ত্রী জাতীয়তাবাদী আইনজীবী ফোরাম থেকে ব্যারিস্টার খোকনকে অব্যাহতি বিএনপির আন্তর্জাতিক সম্পাদকের অসাংগঠনিক তৎপরতায় যুক্তরাষ্ট্র বিএনপিতে তোলপাড় টি-টোয়েন্টিতেও হোয়াইটওয়াশ বাংলাদেশের মেয়েরা ‘স্বাধীনতা পুরস্কার ২০২৪’ পেলেন কুড়িগ্রামের এসএম আব্রাহাম লিংকন

বিশ্বকাপে ব্যক্তিগত অর্জনে সেরা হলেন যারা

Ayesha Siddika | আপডেট: ২০ নভেম্বর ২০২৩ - ০৬:৩২:৩৪ পিএম

স্পোর্টস ডেস্ক : দেখতে দেখতে শেষ হলো বিশ্বকাপ। আইসিসি ওয়ানডে বিশ্বকাপের ১৩তম আসর বসেছিল ভারতে। ইংল্যান্ড-নিউজিল্যান্ড ম্যাচ দিয়ে গত ৫ অক্টোবর শুরু হয় বিশ্বকাপ। ভারতকে হারিয়ে অস্ট্রেলিয়ার শিরোপা জয়ের মধ্য দিয়ে রোববার শেষ হয়েছে বিশ্বকাপ। দুর্দান্ত ছন্দে থাকা ভারতকে ছয় উইকেটে হারিয়ে ষষ্ঠবারের মতো বিশ্বকাপ শিরোপা ঘরে তোলে অস্ট্রেলিয়া। দলগত অর্জন ছাড়াও আছে ব্যক্তিগত কিছু অর্জন। চলুন দেখে আসা যাক সেসব…

স্বপ্নীল এক বিশ্বকাপ কাটিয়েছেন বিরাট কোহলি। বিশ্বকাপ জয়ের জন্য নিজের সবটুকু নিংড়ে দিয়েছেন কোহলি। শিরোপা পাওয়া না হলেও আসর শেষে রান সংগ্রাহকের তালিকায় সবার ওপরে কোহলির নাম। ১১ ম্যাচে করেছেন ৭৬৫ রান। সেঞ্চুরি তিনটি, হাফসেঞ্চুরি ছয়টি। এক বিশ্বকাপে ৭০০ রান করা একমাত্র ক্রিকেটার কোহলি। পেছনে ফেলেছেন শচীন টেন্ডুলকারকেও। ওয়ানডেতে করা শচীনের ৪৯ সেঞ্চুরি রেকর্ড ভেঙে চলতি আসরে কোহলি করেছেন প্রথম ও একমাত্র ক্রিকেটার হিসেবে ৫০ ওয়ানডে সেঞ্চুরির কীর্তি। স্বীকৃতিস্বরূপ টুর্নামেন্ট সেরার পুরস্কারও উঠেছে কোহলির হাতে।

ম্যাচ সেরা ট্রাভিস হেড

রান তাড়া করতে নেমে ফাইনালে ৪৩ রানে তিন উইকেট হারায় অস্ট্রেলিয়া। এক পর্যায়ে মনে হচ্ছিল, ম্যাচ জমিয়ে তুলছে ভারত। তখন অস্ট্রেলিয়ার পক্ষে ঢাল হয়ে দাঁড়ান ট্রাভিস হেড। ভারতীয় বোলারদের কাঁদিয়ে ৯৫ বলে শতক তুলে নেন অজি ওপেনার। বিশ্বকাপ ফাইনালে তৃতীয় অস্ট্রেলিয়ান এবং সবমিলিয়ে সপ্তম ক্রিকেটার হিসেবে সেঞ্চুরির কীর্তি গড়েন তিনি। শেষ পর্যন্ত ১২০ বলে ১৩৭ রান করে সিরাজের বলে আউট হন। ১৫ চার ও চার ছক্কায় সাজানো তার ইনিংসে ভর দিয়ে ষষ্ঠ শিরোপার স্বাদ পায় অস্ট্রেলিয়া। ম্যাচসেরার পুরস্কারও ওঠে হেডের হাতে।

সর্বোচ্চ উইকেট সংগ্রাহক মোহাম্মদ শামি

সর্বোচ্চ উইকেট সংগ্রাহক মোহাম্মদ শামি। হার্দিক পান্ডিয়ার চোটে পাওয়া সুযোগ দারুণভাবে কাজে লাগান ভারতীয় পেসার। মাত্র সাত ম্যাচ খেলে তুলে নেন ২৪ উইকেট। সেমিফাইনালে নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে পিচে রীতিমত আগুন ধরিয়েছেন। সাত উইকেট নিয়ে একাই ধসিয়ে দেন কিউইদের। আসরে একমাত্র ক্রিকেটার হিসেবে তিন ম্যাচে ফাইফার নিয়েছেন শামি।

অভিষেক আসরে সবচেয়ে বেশি রান

তরুণ নিউজিল্যান্ড তারকা রাচিন রবীন্দ্র। ২৩ বছর বয়সি রাচিনের এটি প্রথম বিশ্বকাপ। প্রথম আসরেই ব্যাট হাতে গড়েছেন নতুন রেকর্ড। বিশ্বকাপে অভিষেক আসরে সবচেয়ে বেশি রান করার রেকর্ড এখন তার দখলে। বিশ্বকাপে ১০ ম্যাচ খেলে ৫৭৮ রান করেছেন রাচিন। সেঞ্চুরি তিনটি, হাফসেঞ্চুরি দুটি। গড় ৬৪.২২, স্ট্রাইক রেট ১০৬.৪৪। এতে তিনি ভেঙেছেন অভিষেক আসরে সবচেয়ে বেশি রান করা ইংলিশ ক্রিকেটার জনি বেয়ারস্টোর রেকর্ড। ২০১৯ বিশ্বকাপে ৫৩২ রান করেছিলেন বেয়ারস্টো। সর্বোচ্চ রান সংগ্রাহকের তালিকায় রাচিন আছেন চতুর্থ স্থানে।

 

 

কিউটিভি/আয়শা/২০ নভেম্বর ২০২৩,/সন্ধ্যা ৬:২১

▎সর্বশেষ

ad