‘বাংলাদেশে সুসংগঠিত হতে পারবে না উগ্র মৌলবাদীরা’

ডেস্ক নিউজ : ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের (ডিএমপি) কাউন্টার টেরোরিজম অ্যান্ড ট্রান্সন্যাশনাল ক্রাইম (সিটিটিসি) ইউনিটের প্রধান মনিরুল ইসলাম বলেছেন, শ্রীলঙ্কায় ভয়াবহ সিরিজ বোমা হামলা হলেও বাংলাদেশে সুসংগঠিতভাবে এ ধরনের ঘটনা ঘটানোর সক্ষমতা নেই উগ্র মৌলবাদীদের। এজন্য আইনশৃঙ্খলা বাহিনী সতর্ক আছে।

মঙ্গলবার দুপুরে রাজধানীর সিরডাপ মিলনায়তনে ‘মিট উইথ মনিরুল ইসলাম’ শীর্ষক অনুষ্ঠানে তিনি এসব কথা বলেন।

মনিরুল ইসলাম বলেন, ‘এক ঘটনায় অন্য দেশের সন্ত্রাসীরা সজাগ হতে পারে। আমারও সতর্ক আছি। হলি আর্টিজান হামলার পর ইন্দোনেশিয়ার একটি গোষ্ঠী উদ্বুদ্ধ হয়ে নিজেদের মধ্যে প্রচারণা চালিয়েছিল। বিশ্বের বিভিন্ন দেশে উগ্রবাদীদের সজাগ করতে পারে। কারো কারো মনে আসতে পারে, আমরা কিছু করব। কিন্তু কারো পক্ষে এ ধরনের ঘটনা ঘটানোর সাংগঠনিক সক্ষমতা নেই। ভবিষ্যতেও যাতে কোনো গোষ্ঠী প্রস্তুতি নিয়ে কোনো ধরনের নাশকতা চালাতে না পারে সে ব্যবস্থা করা হয়েছে।’

বাংলাদেশ ক্রাইম রিপোর্টার্স অ্যাসোসিয়েশনের (ক্র্যাব) উদ্যোগে আয়োজিত অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি আরো বলেন, ‘গুলশানে হলি আর্টিজান হামলার পর বিভিন্ন দেশ ভেবেছে, আমরা ঠেকাতে পারব না। কিন্তু সর্বস্তরের মানুষের সহযোগিতায় জঙ্গিবাদ নিয়ন্ত্রণ করা গেছে। তারা (জঙ্গি) ঝিমিয়ে পড়েছে।’

অনুষ্ঠান শেষে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে মনিরুল ইসলাম বলেন, ‘শ্রীলঙ্কায় দীর্ঘদিন ধরে বিচ্ছিন্নতাবাদীদের গৃহযুদ্ধ ছিল। তবে শ্রীলঙ্কার গির্জা এবং হোটেলে যে হামলা হয়েছে, এটি নিঃসন্দেহে সন্ত্রাসবাদ। যা কোনভাবেই কাম্য হতে পারে না। এ ধরনের হামলায় সাধারণত কোনো গোষ্ঠীর নেতা পর্যায়ের লোক অংশ নেন না। কিন্তু এখানে তাওহিদ জামাতের নেতৃত্ব পর্যায়ের একজন সরাসরি হামলায় অংশ নিয়েছে বলে অভিযোগ রয়েছে।’

কিউটিভি/রেশমা/২৩শে এপ্রিল, ২০১৯ ইং/সন্ধ্যা ৭:৫৪

শেয়ার করুন