মানসম্মত ফুল উৎপাদনে কাজ করছে আমেরিকা: মার্কিন রাষ্ট্রদূত

ডেস্ক নিউজ : মার্কিন রাষ্ট্রদূত আর্ল রবার্ট মিলার বলেছেন, ফুল চাষ দেখে আমি খুবই খুশি। এ অঞ্চলে উন্নতমানের ফুল উৎপাদনের অপার সম্ভাবনা রয়েছে। রফতানির চেয়ে মানসম্মত ফুল উৎপাদনে কাজ করছে যুক্তরাষ্ট্র।তিনি বলেন, বাংলাদেশে বার্ষিক ১৫০ লাখ ডলারের ফুলের বাজার রয়েছে। এই বাজার আরও সম্প্রসারিত হাবে। আর অর্থনীতির কারণে বাংলাদেশ ও যুক্তরাষ্ট্রের সম্পর্ক আরও দৃঢ় হয়েছে।

সোমবার বেলা ১১টার দিকে যশোরের ঝিকরগাছা উপজেলার গদখালির পানিসারা এলাকায় ফুল চাষ পরিদর্শনকালে তিনি এসব কথা বলেন।রাষ্ট্রদূত আর্ল রবার্ট মিলার যশোর ও খুলনা এলাকার পরিদর্শনের অংশ হিসেবে ২০ সদস্যের প্রতিনিধি দল নিয়ে গদখালিতে যান। সেখানে ফুলের শেড পরিদর্শন ও চাষিদের সঙ্গে মত বিনিময় করেন।

মার্কিন রাষ্ট্রদূত মিলার বলেন, আমার স্ত্রীও একজন চাষি। তিনি সবজি চাষ করেন। আপনাদের ফুল চাষ দেখতে এসেছে। ফুল চাষে এ অঞ্চলের নারীরা অংশ নিচ্ছেন। এ সম্ভাবনা বাড়াতে ও চাষিদের উন্নয়নে ইউএসআইডি কাজ করছে। তারা কৃষিক্ষেত্রে বেশি গুরুত্ব দিয়ে কাজ করতে চায়।মতবিনিময় সভায় বক্তব্য রাখেন রাষ্ট্রদূতের স্ত্রী মিশেল এডেলম্যান, যুক্তরাষ্ট্রের ডেপুটি মিশন ডিরেক্টর জেনা সালাহ।

এ সময় চাষিরা তাদের বিভিন্ন সমস্যার কথা তুলে ধরে মার্কিন সরকারের সহায়তা কামনা করেন।মিশেল বলেন, আমি গুল্মজাতীয় সবজি চাষ করি। ফুল আমার খুব পছন্দ। আপনাদের ফুলচাষ দেখতে এসেছি। এখানে দেখছি নারীরাও ফুল চাষ করছে। আমার খামারেও ৬৫ জন নারী কাজ করেন।ডেপুটি মিশন ডিরেক্টর জেনা সালাহ বলেন, ফুল আমার খুব পছন্দ। আপনারা কীভাবে ফুল চাষ করেন, সেটি দেখতে এসেছি। ইউএসএআইডির সহযোগিতায় কীভাবে ফুল বিপ্লব হয়েছে, সেটি দেখার জন্যই এসেছি।

ইউএসআইডির প্রাইভেট সেক্টরের উপদেষ্টা অনুরদ্ধ রায় জানান, তারা চাষিদের উন্নত চাষাবাদ ও মানসম্মত ফুল উৎপাদনের বিষয়টি গুরুত্ব দিয়ে কাজ করছে। এতে উৎপাদনশীলতা ১৫০ ভাগ পর্যন্ত বেড়েছে। এ জন্য পানিসারায় বাংলাদেশের প্রথম ফ্লাওয়ার স্টোর নির্মাণ করেছে। আগামীতে প্যাকেজিং, গ্রেডিং ও রফতানি সম্ভাবনা নিয়ে কাজ করবে।

এ সময় আরও উপস্থিত ছিলেন যশোরের স্থানীয়র সরকার বিভাগের উপপরিচালক নূর ই আলম, বিএডিসি (সেচ) যশোরের নির্বাহী প্রকৌশলী মাহবুব আলম, ঝিকরগাছা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা জাহিদুল ইসলাম, বাংলাদেশ ফ্লাওয়ার সোসাইটির সভাপতি আবদুর রহিম, প্রবীণ চাষি শের আলী প্রমুখ।

 

 

কিউটিভি/আয়শা/১১ই ফেব্রুয়ারি, ২০১৯ ইং /সন্ধ্যা ৭:০৯

শেয়ার করুন