আমিরাতের শাইমানের সামনে ম্লান রাসেল ঝড়

স্পোর্টস ডেস্ক : কানাডার গ্লোবাল টি-টোয়েন্টির ফাইনালে ভ্যাঙ্কুবার নাইটসকে সুপার ওভারে হারিয়ে শিরোপা জিতেছে উইনিপেগ হকস। প্রথমে ব্যাট করা উইনিপেগ হকসের ১৯২ রানের জবাবে নির্ধারিত ২০ ওভারে ১৯২ রানেই থামে ভ্যাঙ্কুবার নাইটস। পরে সুপার ওভারে ভ্যাঙ্কুবারের ১০ রানের টার্গেট সহজেই টপকে যায় উইনিপেগ। এদিকে, সোমবার টস হেরে ব্যাট করতে নেমে উইনিপেগের আরব আমিরাতের ব্যাটসম্যান শাইমান আনোয়ারের ৪৫ বলে ৯০ রানের দুর্দান্ত ইনিংসে ভর করে ৮ উইকেটে ১৯২ রান সংগ্রহ করে দলটি। এছাড়া অসি ওপেনার ক্রিস লিন ২১ বলে ৩৭ এবং প্রোটিয়া অলরাউন্ডার জেপি ডুমিনি খেলেন ২৭ বলে ৩৩ রানের ইনিংস।

জবাব দিতে নেমে দুই রানে দুই উইকেট হারালেও ব্যাটসম্যান শোয়েব মালিকের ৩৬ বলে ৬৪ ও আন্দ্রে রাসেলের ২০ বলে ৪৬ রানের ইনিংসের ওপর ভর করে জয়ের কাছাকাছি পৌঁছে যায় ভাঙ্কুবার। শেষ ১২ বলে জয়ের জন্য তাদের প্রয়োজন ছিল ৩৮ রান। ব্যাটিংয়ে তখন ৭ বল থেকে ১৪ রান করে অপরাজিত ছিলেন বিধ্বংসী ব্যাটসম্যান আন্দ্রে রাসেল। নিজের নামের প্রতি সুবিচার করে ৩টি চার ও ৩টি ছক্কার মারে মাত্র ৯ বলেই ৩৫ রান তুলে ফেলেন এই ক্যারিবীয় তারকা। ফলে শেষের ৩ বলে জয়ের জন্য দরকার ছিল মাত্র ৩ রান। কিন্তু পারলেন রাসেল।

শেষ ওভারের চতুর্থ এবং পঞ্চম বলে ডট দিয়ে সমীকরণটি কঠিন ফেলেন পাকিস্তানের বাঁহাতি পেসার কালিম সানা। ফলে শেষ ১ বলে ৩ রানের দরকার পড়ে। কিন্তু শেষ বল থেকে মাত্র ২ রান নিতে পারলেন রাসেল। ফলে ম্যাচ যায় সুপার ওভারে। সেখানে প্রথম বলেই ছক্কা হারানো রাসেল ওভারে চতুর্থ বলে আউট হওয়ার আগে ৩ বলে ৭ রান করেন। ব্যর্থ হয় ওপর ব্যাটসম্যান ফন ডার ডুসেনও। ফলে ১০ রানের লক্ষ্য পায় উইনিপেগ। জবাব দিতে নেমে দুই বল হাতে রেখেই দলকে জয় এনে দেন ক্রিস লিন ও শাইমান আনোয়ার। ম্যাচ সেরা হয়েছেন শাইমান আনোয়ার এবং টুর্নামেন্ট সেরা হয়েছেন জেপি ডুমিনি।

 

 

কিউটিভি/আয়শা/১২ই আগস্ট, ২০১৯ ইং/বিকাল ৪:৫১

শেয়ার করুন